খবর

অর্থ সংকট, তবু এলএনজি টার্মিনাল নির্মাণ সম্প্রসারণে এশিয়ায় সপ্তম বাংলাদেশ

বিদ্যুৎ কেন্দ্র সচল রাখতে বৈশ্বিক ঊর্ধ্বমুখী দরের মধ্যেও জ্বালানি সংগ্রহে মরিয়া পাকিস্তান। এর মধ্যেই দুঃসংবাদ দিল দেশটিতে তরলীকৃত পেট্রোলিয়াম গ্যাস (এলএনজি) সরবরাহকারী ইতালিয়ান প্রতিষ্ঠান ইএনআই।  দীর্ঘমেয়াদি সরবরাহ চুক্তির আওতায় আগামী ফেব্রুয়ারিতে আর এলএনজি কার্গো সরবরাহ করবে না বলে জানিয়ে দিয়েছে কোম্পানিটি। এর কারণ হিসেবে পাকিস্তানের নজিরবিহীন রিজার্ভ সংকট, মুদ্রার অবমূল্যায়ন, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে ভঙ্গুর দশা এবং বিপুল পরিমাণ বৈদেশিক ঋণকেই দায়ী করছেন খাতসংশ্লিষ্টরা। বিদ্যমান এ সংকটের মধ্যেই এশিয়ায় এলএনজি টার্মিনাল সম্প্রসারণ পরিকল্পনায় দেশটির অবস্থান ছয় নম্বরে উঠে এসেছে। পাকিস্তান এ খাতে ৩ দশমিক ৬ বিলিয়ন ডলারের প্রস্তাব পেয়েছে বলে জ্বালানি খাতের মার্কিন তথ্য সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান ‘গ্লোবাল এনার্জি মনিটরের’ এক প্রতিবেদনে উঠে এসেছে। এর পরই বাংলাদেশের অবস্থান, এশিয়ায় সপ্তম। এলএনজি টার্মিনাল সম্প্রসারণে ২ দশমিক ৬ বিলিয়ন ডলারের প্রস্তাব পেয়েছে বাংলাদেশ।

Read More »

সৌরবিদ্যুতে মিলবে সংকটের সার্বিক সমাধান

বিশ্ব পরিবেশ ও জ্বালানি সংকটে সমূহ দুর্যোগ থেকে রক্ষা পাওয়ার একমাত্র উপায় নবায়নযোগ্য উৎস। পৃথিবীর প্রতিটি দেশ এখন সেদিকেই ঝুঁকছে। বাংলাদেশও অন্তত ১০ শতাংশ বিদ্যুৎ উৎপাদনে এ পরিকল্পনা করেছিল, কিন্তু প্রভাবশালী তেল-গ্যাস লবির দৌরাত্ম্যে সে ক্ষেত্রে সাফল্য এসেছে সামান্যই। ছোট একটি দেশে অকৃষিজমি খুঁজে পাওয়াও সহজ নয়। তবে সোলার প্যানেলের দক্ষতা দিন দিন বাড়ছে। দামও কমছে পাল্লা দিয়ে। প্রচলিত সেন্ট্রাল ইনভার্টারের পরিবর্তে ডিস্ট্রিবিউটেড প্রযুক্তির ‘স্ট্রিং ইনভার্টার’ সৌর প্রকল্পের ডাউন টাইম ব্যাপকভাবে কমিয়ে এনেছে।

Read More »

বারবার দাম বাড়িয়ে কি গ্যাস–সংকট মেটানো যাবে?

বিদ্যুতের দাম ৫ শতাংশ বাড়ানোর এক সপ্তাহের মধ্যেই নির্বাহী আদেশে রেকর্ড পরিমাণ বাড়ানো হলো গ্যাসের দাম। গড় মূল্যবৃদ্ধি ৮২ শতাংশ হলেও বিদ্যুৎ ও শিল্প খাতে মূল্যবৃদ্ধির হার ১৫০ থেকে ১৭৯ শতাংশ। (এবার গ্যাসের রেকর্ড মূল্যবৃদ্ধি, প্রথম আলো, ১৯ জানুয়ারি ২০২৩) মাত্র সাত মাস আগেই জুন ২০২২ এ গ্যাসের দাম গড়ে ২৩ শতাংশ বাড়ানো হয়েছিল। এবার আবাসিক, পরিবহন এবং সার উৎপাদনে গ্যাসের দাম বাড়ানো না হলেও বিদ্যুৎ ও শিল্প খাতে গ্যাসের মূল্য প্রায় তিন গুণ হওয়ার ফলে বিদ্যুৎ থেকে শুরু করে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যসামগ্রীর ব্যাপক মূল্যবৃদ্ধির আশঙ্কা রয়েছে, যা ইতিমধ্যেই মূল্যস্ফীতিতে বিপর্যস্ত জনজীবনকে আরও দুর্বিষহ করে তুলবে।

Read More »

এক সময়ের ‘দামি’ সৌরবিদ্যুৎ এখন সবচেয়ে ‘সস্তা’

একটা সময়ে বিদ্যুৎ উৎপাদনে নবায়নযোগ্য জ্বালানির দর সবচেয়ে বেশি ছিল। পাঁচ বছর আগে দেশে নবায়নযোগ্য জ্বালানি থেকে প্রতি ইউনিট বিদ্যুৎ উৎপাদনে ১৮ সেন্ট বা ২০ টাকার কাছাকাছি ব্যয় হতো। কিন্তু মাত্র পাঁচ বছরের ব্যবধানে সেই বিদ্যুতের দাম কমে ১০ সেন্টে নেমে এসেছে। কিন্তু এখন সৌর ছাড়া অন্য সব বিদ্যুতের উৎপাদন খরচই ইউনিটপ্রতি ১০ সেন্টের অনেক ওপরে। গত বুধবার (১৮ জানুয়ারি) গ্যাসের দাম বৃদ্ধি করায় এখন গ্যাসভিত্তিক বিদ্যুৎ উৎপাদনের খরচও নবায়নযোগ্য জ্বালানির চাইতে বেশি হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

Read More »

খোলাবাজারে তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাসের (এলএনজি) দামের নিম্নমুখী প্রবণতা দেশের বাজারে ইতিবাচক প্রভাব ফেলবে বলে মনে করেন কি?

তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাসের (এলএনজি) দাম খোলাবাজারে কমতির দিকে। এলএনজির দাম প্রতি ইউনিট ২৫ ডলারের নিচে নেমে এসেছে। অথচ গত বছর বিশ্ববাজারে এ দাম ৭০ ডলারে উঠেছিল। দামের এ নিম্নমুখী প্রবণতা দেশের বাজারে ইতিবাচক প্রভাব ফেলবে বলে মনে করেন কি?

Read More »

বছরে ৩ বিলিয়ন ডলারের আমদানি না করে গ্যাস অনুসন্ধানে বিনিয়োগ উত্তম

দেশের গ্যাস খাতের মহাপরিকল্পনাটি প্রণয়ন করানো হয়েছিল ডেনমার্কের প্রকৌশল ও পরামর্শক প্রতিষ্ঠান র‍্যাম্বলকে দিয়ে। সে সময় বাংলাদেশে গ্যাসের চাহিদা ও সরবরাহের ওপর মধ্যম মেয়াদি এক প্রক্ষেপণে সংস্থাটির পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল, ২০২১ থেকে ২০৩০ সাল পর্যন্ত প্রতি বছর বাংলাদেশের চাহিদা পূরণে গ্যাস আমদানিতে ব্যয় করতে হবে ৩ বিলিয়ন ডলারের বেশি।

Read More »
gas price should not be increased

সংকটের মধ্যেই বাড়বে গ্যাসের দাম, খাতভেদে ৫০–১০০ শতাংশ বাড়তে পারে

সরকার আবারও গ্যাসের দাম বাড়াবে। মূল্যবৃদ্ধির প্রক্রিয়া ইতিমধ্যে শুরু হয়েছে, প্রজ্ঞাপন জারি হতে পারে চলতি সপ্তাহে। জ্বালানি মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, এ দফায় দাম বাড়ানোর ক্ষেত্রে আমদানি বৃদ্ধির বিষয়টি সামনে আনা হচ্ছে। বলা হচ্ছে, বিদেশ থেকে বাড়তি দাম দিয়ে কিনে তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস (এলএনজি) আমদানি বাড়ানো হবে। এ জন্য বেশি টাকা লাগবে। ভর্তুকি কমাতে সেই টাকার একটা অংশ ওঠানো হবে গ্যাসের দাম বাড়িয়ে। ব্যবসায়ীরা বাড়তি দাম দিতে রাজি। যদিও এর আগে দুই দফা সরবরাহ বাড়ানোর প্রতিশ্রুতি দিয়ে গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধি করা হয়েছিল। কিন্তু পরে গ্যাস আমদানি বাড়ানো হয়নি।

Read More »

‘শুধু অতিরিক্ত বিদ্যুৎ বিল নয়, দৈনন্দিন খরচও বেড়ে যাবে’

বিদ্যুতের ভোক্তা পর্যায়ে মূল্যবৃদ্ধির ফলে ভোক্তাকে কেবল অতিরিক্ত বিদ্যুৎ বিলই দিতে হবে তা নয়, বরং বিভিন্নভাবে তার দৈনন্দিন খরচ বেড়ে যাবে বলে মন্তব্য করেছেন সেন্টার ফর পলিসি ডায়লগ-সিপিডির গবেষণা পরিচালক ড. খন্দকার গোলাম মোয়াজ্জেম। সম্প্রতি ভোক্তাপর্যায়ে বিদ্যুতের খুচরা দাম গড়ে প্রতি ইউনিটে ৫ শতাংশ বাড়ায় সরকার। এর পরিপ্রেক্ষিতে খন্দকার মোয়াজ্জেম দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘বিদ্যুতের দাম বাড়ার ফলে ভোক্তা পর্যায়ে ব্যয় তো বাড়বেই, একইসঙ্গে বিদ্যুৎভিত্তিক কৃষি ও শিল্পখাতে উৎপাদন ব্যয় বাড়বে। ফলে বিভিন্ন জিনিসপত্রের দাম বাড়বে। এই দাম বৃদ্ধির ফলে সরকারের ভর্তুকি হয়তো কিছুটা কমবে, কিন্তু এর ফলে ভোক্তা পর্যায়ে বিদ্যুতের যে প্রাপ্যতা, সেটা বাড়বে না। বরং বিদ্যুৎ পাওয়ার ক্ষেত্রে যেসব চ্যালেঞ্জ আছে, তা থেকেই যাবে।’

Read More »

সৌরবিদ্যুতে মিলবে সংকটের সার্বিক সমাধান

বিশ্ব পরিবেশ ও জ্বালানি-সংকটে সমূহ দুর্যোগ থেকে রক্ষা পাওয়ার একমাত্র উপায় নবায়নযোগ্য উৎস। পৃথিবীর প্রতিটি দেশ এখন সেদিকেই ঝুঁকছে। বাংলাদেশও অন্তত ১০ শতাংশ বিদ্যুৎ উৎপাদনে এ পরিকল্পনা করেছিল, কিন্তু প্রভাবশালী তেল-গ্যাস লবির দৌরাত্ম্যে সে ক্ষেত্রে সাফল্য এসেছে সামান্যই। তবে ছোট একটা দেশে অকৃষিজমি খুঁজে পাওয়াও সহজ নয়। ১ মেগাওয়াট সোলার ফার্ম স্থাপনে ৩ একর জমির প্রয়োজন হয়। তবে সোলার প্যানেলের দক্ষতা দিন দিন বাড়ছে, দামও কমছে পাল্লা দিয়ে। প্রচলিত সেন্ট্রাল ইনভার্টারের পরিবর্তে ডিস্ট্রিবিউটেড প্রযুক্তির ‘স্ট্রিং ইনভার্টার’ সৌর প্রকল্পের ডাউন টাইম ব্যাপকভাবে কমিয়ে এনেছে।

Read More »

৮১২ কোটি বিনিয়োগে ১ লাখ কোটি টাকার এলএনজি ব্যয় সাশ্রয় করেছে বাপেক্স

বাপেক্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ আলী বণিক বার্তাকে বলেন, ‘২০২৫ সালের মধ্যে পেট্রোবাংলার লক্ষ্য জাতীয় গ্রিডে ৬১৫ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস যুক্ত করা। আমরা সে লক্ষ্য নিয়ে এসব কূপ খনন করছি। এরই মধ্যে এসব কূপ ১২০-১৩০ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস উৎপাদনক্ষম হয়ে উঠেছে। উচ্চমূল্যের কারণে এলএনজি আমদানির পরিবর্তে জ্বালানি বিভাগ বাপেক্সকে যেভাবে কাজে লাগিয়েছে, তাতে আমরা সাফল্য দেখাতে পেরেছি।’

Read More »

ফের অনিশ্চয়তার আভাস এশিয়ার এলএনজি বাজারে

চলতি বছরও তীব্র অনিশ্চয়তার মুখে পড়তে পারে এশিয়ার তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাসের (এলএনজি) বাজার। সামষ্টিক অর্থনীতি, ভূরাজনৈতিক ও আবহাওয়াজনিত বিভিন্ন বিষয় জ্বালানিটির সরবরাহ ও চাহিদায় নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে। সামষ্টিক অর্থনীতির ক্ষেত্রে বাড়তে থাকা সুদের হার ও মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণে কেন্দ্রীয় ব্যাংকগুলোর প্রয়াস বেশির ভাগ দেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ও জ্বালানি চাহিদায় নেতিবাচক প্রভাব ফেলছে। বিদ্যুতের ব্যবহার ও প্রাকৃতিক গ্যাসের চাহিদায়ও এর প্রভাব দৃশ্যমান হয়ে উঠেছে। এদিকে বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ও ডলারের মূল্যবৃদ্ধি এশিয়ার বেশির ভাগ অর্থনীতির এলএনজি আমদানির ক্ষেত্রে ভয়াবহ উদ্বেগের কারণ হয়ে দাঁড়াচ্ছে। এমনকি সরকারগুলো সম্ভাব্য মন্দা প্রতিরোধের জোর প্রচেষ্টা চালালেও এ উদ্বেগ অনিবার্য হয়ে উঠছে।

Read More »
gas price should not be increased

বিদ্যুৎ-গ্যাস নিয়ে শঙ্কা থাকছেই, বাড়বে দাম

২০২২ সাল জুড়ে বিদ্যুৎ ও গ্যাস সংকটে অসহনীয় ভোগান্তি পোহাতে হয় দেশবাসীকে। বাসা-বাড়ি থেকে শিল্প-কারখানা সব খাতেই বিদ্যুৎ ও গ্যাসের ঘাটতি মোকাবিলা করতে হয়। আসন্ন গরম ও সেচ মৌসুমেও বিদ্যুৎ এবং গ্যাসের সংকট ভোগাতে পারে বলে আশঙ্কা সংশ্নিষ্টদের। ২০২২ সালে জ্বালানি তেল ও গ্যাসের দাম এক দফা বাড়ানো হয়। বিদ্যুতের দাম বাড়ানোর প্রক্রিয়া ইতোমধ্যে শুরু হয়েছে। ভর্তুকি কমাতে ২০২৩ সালেও গ্যাস ও বিদ্যুতের দাম বাড়ানো হতে পারে।

Read More »

দূরের যুদ্ধ ভোগাল গ্যাস-বিদ্যুতে

ভালো চলছিল সবকিছুই, ধারাবাহিক অগ্রগতির চূড়ান্ত ধাপে বছরের প্রথম প্রান্তিকে প্রত্যন্ত প্রান্তিকও হয়ে উঠেছিল আলোকিত; দেশ ছুঁয়েছিল শতভাগ বিদ্যুতায়নের মাইলফলক। যদিও সেই সুখ সইলো না বেশিদিন। সুদূরের এক যুদ্ধের প্রভাব আছড়ে পড়ল বাংলাদেশে- পাল্টে দিল অনেক কিছুই। বছরের মাঝামাঝিতে ভুলতে বসা লোডশেডিং অনেক দিন বাদে ফিরে এল ঘটা করে। গ্যাসের অভাবে থেমে গেল কারখানার চাকা। বিদ্যুতের গ্রিড বিপর্যয়ে ভয়ংকর এক অন্ধকারের অভিজ্ঞতার মুখোমুখি হল সবাই।

Read More »

বিদ্যুৎ খাত: কুইক রেন্টালে লুটপাট ও ক্যাপাসিটি চার্জের বোঝা

বিদ্যুৎ খাতের যে অনিয়মটি নিয়ে গত এক দশক ধরে সবচেয়ে বেশি আলোচনা হচ্ছে তার মধ্যে অন্যতম হলো কুইক রেন্টালের নামে লুটপাট। পাশাপাশি ক্যাপাসিটি চার্জের নামে গুটি কয়েক কোম্পানির হাতে হাজার হাজার কোটি টাকা চলে যাওয়ার বিষয়টিও সাম্প্রতিক সময়ে সামনে এসেছে। তবে গত জুলাইয়ে ঘোষণা দিয়ে আনুষ্ঠানিক লোডশেডিং শুরুর পর থেকে এ দুটি বিষয় নিয়ে আলোচনা আরও জোরালো হয়েছে। গণমাধ্যমগুলোয় উঠে আসতে শুরু করে এ দুই খাতের নানা অনিয়ম ও লুটপাটের চিত্র।

Read More »

আরো দুটি ভাসমান এলএনজি টার্মিনাল চুক্তির পথে পেট্রোবাংলা

দেশে তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস (এলএনজি) সরবরাহে দৈনিক ১০০ কোটি ঘনফুট সক্ষমতার দুটি ফ্লোটিং স্টোরেজ রিগ্যাসিফিকেশন ইউনিট (এফএসআরইউ) বা ভাসমান এলএনজি টার্মিনাল রয়েছে। আমদানি সংকটের কারণে এরই মধ্যে টার্মিনাল দুটির সরবরাহ সক্ষমতা নেমেছে ৫০ শতাংশের নিচে। এ পরিস্থিতির মধ্যে আরো দুটি ভাসমান এলএনজি টার্মিনাল নির্মাণে চুক্তি করতে যাচ্ছে পেট্রোবাংলা। গ্যাস সংকটে এ ধরনের অবকাঠামোর প্রয়োজন না থাকলেও টার্মিনাল নির্মাণে তৎপর হয়ে উঠেছে যুক্তরাষ্ট্রের বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতের প্রতিষ্ঠান এক্সিলারেট এনার্জি এবং এ খাতের স্থানীয় কোম্পানি সামিট গ্রুপ।

Read More »

জ্বালানি খাতের মহাপরিকল্পনা বাস্তবসম্মত নয়

২০৪১ সালের মধ্যে দেশের মানুষের মাথাপিছু আয় ১২ হাজার ডলারের যে লক্ষ্যমাত্রা ঠিক করা হয়েছে তাকে রাজনৈতিক ও উচ্চাভিলাষী বলে মনে করছে বেসরকারি গবেষণা প্রতিষ্ঠান সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগ (সিপিডি)। প্রতিষ্ঠানটির গবেষণা পরিচালক খন্দকার গোলাম মোয়াজ্জেম বলেছেন, এ লক্ষ্যমাত্রার ওপর ভিত্তি করে জ্বালানি ও বিদ্যুৎ খাতের জন্য যে মহাপরিকল্পনা ঘোষিত হতে যাচ্ছে সেটিও বাস্তবসম্মত নয়।

Read More »

ভবিষ্যৎ সবুজ বিদ্যুৎ পরিকল্পনা কোন পথে?

টেকসই ও নবায়নযোগ্য জ্বালানি উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (স্রেডা) ও ইউএনডিপির তত্ত্বাবধানে তৈরি ‘ন্যাশনাল সোলার এনার্জি রোডম্যাপ ২০২১-৪১’-এর মতে, জমির স্বল্পতা সত্ত্বেও সৌর বিদ্যুতায়নের মধ্যমানের কৌশলে ২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশে ২০ হাজার মেগাওয়াট সবুজ বিদ্যুৎ উৎপাদন সম্ভব। অন্যদিকে নদী অববাহিকা উন্নয়নের ৫ শতাংশ ভূমি, শিল্পাঞ্চলের রুফটপসহ অপরাপর অব্যবহৃত ভূমি নিয়ে একটি উচ্চপর্যায়ের সৌর মডেলে এই সক্ষমতা ৩০ হাজার মেগাওয়াটে পৌঁছানো সম্ভব।

Read More »

২০৩০ সালে পরিবেশবান্ধব জ্বালানিতে ব্যয় ২ ট্রিলিয়নে পৌঁছবে

কিছুটা ধীরগতিতে হলেও বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সরকার পরিচ্ছন্ন ও পরিবেশবান্ধব জ্বালানি খাতে ব্যয় বাড়াচ্ছে। ইন্টারন্যাশনাল এনার্জি এজেন্সি (আইইএ) বলছে, গত মার্চ থেকে দেশগুলো পরিবেশবান্ধব জ্বালানি খাতকে সমর্থন দিতে ৫০ হাজার কোটি ডলারের বেশি ব্যয় বাড়িয়েছে। বিশ্বজুড়ে জ্বালানি সংকটের কারণে জীবাশ্ম জ্বালানির ওপর নির্ভরতা কমাতে নতুন নতুন নীতি গ্রহণ করা হচ্ছে। এর ধারাবাহিকতায়ই বাড়ছে পরিবেশবান্ধব জ্বালানি খাতে ব্যয়।

Read More »

এলএনজি টার্মিনালের সক্ষমতা ব্যবহারে পিছিয়ে বাংলাদেশ

বিশ্ববাজারে তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাসের (এলএনজি) অস্বাভাবিক দাম থাকায় এলএনজি টার্মিনালের সক্ষমতা অব্যবহূত হওয়ার তালিকায় সবচেয়ে বেশি পিছিয়ে বাংলাদেশ। এলএনজির রিগ্যাসিফিকেশনে মোট সক্ষমতার ৫০ শতাংশেরও বেশি অব্যবহূত আছে।গত বছরের চেয়ে চলতি বছরে বাংলাদেশ এলএনজি টার্মিনালের সক্ষমতার ৫০ শতাংশও ব্যবহার করতে পারেনি। ২০২১ সালে এলএনজি সরবরাহে টার্মিনাল ব্যবহার হয়েছিল ৭৫ শতাংশের কাছাকাছি। এ বছর ২৫ শতাংশের বেশি কমে গিয়ে তা ৫০ শতাংশের নিচে নেমেছে।

Read More »

দেড় কোটি টাকার সোলার প্যানেল দীর্ঘদিন ধরে অকেজো

বাংলাদেশ সরকারের উদ্যোগে বিদ্যুৎ সাশ্রয়ের জন্য ২০১৪ সালে চুনারুঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) অফিসের ছাদে বসানো হয় এক কোটি ৪৭ লাখ টাকা ব্যয়ে সৌরবিদ্যুৎ। কিছুদিন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) অফিসসহ গুরুত্বপূর্ণ অফিসগুলো এর সুবিধা পেলেও ক’বছর যেতে না যেতেই সোলার প্যানেল নষ্ট হয়ে পড়ে। এতে একদিকে পুরাতন ভবনে ঝুঁকি নিয়ে দাঁড়িয়ে আছে, অন্যদিকে অযত্ন অবহেলায় নষ্ট হচ্ছে এর ব্যাটারিসহ মূল্যবান যন্ত্রপাতি। ফলে অপচয় হচ্ছে সরকারের বিপুল পরিমাণ অঙ্কের অর্থ। 

Read More »

বাংলাদেশে এলএনজি সরবরাহে আগ্রহী ইতালি

ইতালিয়ান রাষ্ট্রদূত জানান, রাষ্ট্রীয় জ্বালানি কম্পানি ইনি এসপিএ বাংলাদেশে এলএনজি সরবরাহে আগ্রহ প্রকাশ করেছে। তারা বাংলাদেশের টেকসই জ্বালানি ব্যবস্থায় অবদান রাখতে অনুসন্ধান, এলএনজি, বায়ো এবং ট্র্যাডিশনাল পরিশোধন কার্যকলাপ, বায়ু, জলবায়ু সংরক্ষণ, হাইড্রোজেন ও নবপ্রযুক্তি বিষয়ে কাজ করার ইচ্ছা প্রকাশ করেছে।

Read More »

নবায়নযোগ্য জ্বালানিতে উৎপাদন হবে ৩ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ

বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছেন, ২০৩০ সালের মধ্যে তিন হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ নবায়নযোগ্য জ্বালানি থেকে উৎপাদন করা হবে। বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ এমনিতেই কার্বন ইমিশন কম করে। তারপরও ২০৩০ সালের মধ্যে ১৫% পর্যন্ত কার্বন ইমিশন কমানোর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। ক্লিন এনার্জির বিস্তারে সরকার পরিকল্পনা অনুসারে এগোচ্ছে। বাংলাদেশের জন্য প্রযুক্তিগত সহায়তা প্রয়োজন।

Read More »

সংস্থান হচ্ছে না গ্যাসের, তবুও পরিকল্পনায় আরো সাড়ে ৮ হাজার মেগাওয়াট গ্যাসভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র

চলতি বছরের অক্টোবর পর্যন্ত দেশে গ্যাসভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের উৎপাদন সক্ষমতা দাঁড়িয়েছে ১১ হাজার ৪৭৬ মেগাওয়াট। কিন্তু গ্যাস সংকটের কারণে প্রায় সাড়ে ৬ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎকেন্দ্র বন্ধ রাখতে হচ্ছে। এ পরিস্থিতির মধ্যে গ্যাস এবং আমদানি তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাসের (এলএনজি) ওপর ভর করে আরো প্রায় সাড়ে ৮ হাজার মেগাওয়াট সক্ষমতার ১০টি বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণ পরিকল্পনা করেছে সরকার। এরই মধ্যে সম্ভাব্যতা সমীক্ষা শেষ হয়েছে সাতটি বিদ্যুৎকেন্দ্রের। বাকি তিনটি বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণে সমীক্ষার কাজ চলমান।

Read More »

এক হাজার মেগাওয়াট সৌর বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপনে সৌদির সঙ্গে চুক্তি

দেশের সবচেয়ে বড় সৌর বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপনের বিষয়ে সৌদির অ্যাকোয়া পাওয়ারের সঙ্গে বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের (বিপিডিবি) সঙ্গে সমঝোতা স্মারক সই হয়েছে। প্রকল্পটি নোয়াখালীর স্বর্ণদ্বীপে বাস্তবায়ন হলে এক হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন করা সম্ভব হবে।

Read More »

ব্রুনেই থেকে বছরে ১৫ লাখ টন এলএনজি পাওয়ার সম্ভাবনা

ব্রুনেইয়ে বাংলাদেশ ও ব্রুনেই দারুসসালামের মধ্যে জ্বালানি সহযোগিতা নিয়ে দ্বিপক্ষীয় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় আলোচনা হয় ব্রুনেই দারুসসালাম থেকে বছরে ১ থেকে ১.৫ মিলিয়ন মেট্রিক টন তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস (এলএনজি) আসবে। ১০-১৫ বছর মেয়াদি চুক্তিতে আগামী ২০২৩ সালের প্রথম দিক থেকেই এই এলএনজি পাওয়া যাবে।

Read More »

স্পট মার্কেটে ৬৩% দাম কমলেও এলএনজি কিনতে পারছে না পেট্রোবাংলা

স্পট মার্কেটে তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাসের (এলএনজি) দাম এখন কমছে। আন্তর্জাতিক বাজারে গত আড়াই মাসে জ্বালানি পণ্যটির দাম কমেছে ৬৩ শতাংশের বেশি। বাজারে এখন প্রতি এমএমবিটিইউ (মিলিয়ন মেট্রিক ব্রিটিশ থার্মাল ইউনিট—জ্বালানি পণ্য পরিমাপের একক) এলএনজির দাম নেমে এসেছে ২৫ ডলার ৮৮ সেন্টে। আগামী মাস নাগাদ পণ্যটির দাম আরো কমে আসবে বলে প্রত্যাশা করছেন আন্তর্জাতিক জ্বালানি বাজারের পর্যবেক্ষকরা।

Read More »

মাতারবাড়িতে সোলার বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপনে সমঝোতা স্মারক সই শিগগিরই

মাতারবাড়িতে ৪০৯ মেগাওয়াট ক্ষমতার সৌর বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপনের প্রস্তাব দিয়েছে সিঙ্গাপুরের একটি কোম্পানি। খুব শিগগিরই এই কোম্পানির সাথে সমঝোতা স্মারক সই করা হবে। বুধবার (১৬ নভেম্বর) সচিবালয়ে তার অফিস কক্ষে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন সিঙ্গাপুরের পরিবহন ও ব্যবসা সম্পর্ক বিষয়কমন্ত্রী এস ইশ্বরণ। এ সময় প্রতিমন্ত্রী এসব কথা বলেন। সাক্ষাৎকালে তারা পারস্পরিক স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন।

Read More »

বিদ্যুৎ-জ্বালানি সংকটের স্বল্প মধ্য ও দীর্ঘমেয়াদি সমাধান কী?

বিদ্যুৎ ও জ্বালানি সংকটে সরকারের পদক্ষেপ হচ্ছে, রিজার্ভ বাঁচাতে আমদানিনির্ভর প্রাথমিক জ্বালানি কম কিনে বিদ্যুৎকেন্দ্র বন্ধ রেখে পরিকল্পিত লোডশেডিং করা এবং নাগরিকেদের বিদ্যুৎ ব্যবহারে সাশ্রয়ী হওয়ার আহ্বান জানানো। কিন্তু ‘ডলার ড্রেইনের’ প্রধানতম খাতগুলো খোলা রেখে এমন চেষ্টা কি আদৌ টেকসই?

Read More »

ভুল নীতির কারণে বিদ্যুতের এ সংকট অনিবার্য ছিল: সাবেক বিদ্যুৎ সচিব মু. ফাওজুল কবির খান

বর্তমান সরকারের দীর্ঘ মেয়াদকালে বিদ্যুৎ-ব্যবস্থার টেকসই উন্নয়নের সুযোগ ছিল। এ সময় প্রাথমিক জ্বালানির মূল্য ও বৈশ্বিক অর্থনীতি তুলনামূলকভাবে স্থিতিশীল ছিল। তারা সেই সুযোগ কাজে লাগাতে পারেনি এবং বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাত এখন খাদের কিনারে। এ অবস্থা থেকে উত্তরণের জন্য নিম্নোক্ত ব্যবস্থাগুলো গ্রহণ করা প্রয়োজন বলে আমি মনে করি।

Read More »

সংকট নিরসনে নবায়নযোগ্য শক্তির ব্যবহার বাড়ানো আবশ্যক

জ্বালানি সংকটের কারণ চাহিদা ও জোগানে ভারসাম্যের অভাব। যেহেতু প্রাকৃতিক গ্যাস পাইপলাইনের মধ্য দিয়ে পরিবহন করা হয়, ফলে কেউ ইচ্ছা করলেই এর জোগান পরিবর্তন করে অন্য কোথাও পরিবহন করতে পারে না। এ কারণে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ শুরুর পরে স্পট বাজার নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে গিয়েছে। এছাড়া তেল কোম্পানিগুলোর বিনিয়োগে অনীহাও সংকটের একটি কারণ। সংকট নিরসনে নবায়নযোগ্য শক্তির ব্যবহার বাড়ানো আবশ্যক। এরই মধ্যে ইউরোপের অনেক দেশ নবায়নযোগ্য সৌরশক্তি ও বায়ুশক্তির মাধ্যমে শক্তির চাহিদা পূরণ করছে।

Read More »

কুতুবদিয়া থেকে সৌরবিদ্যুৎ আনছে পিডিবি

কুতুবদিয়ায় অবস্থিত সোলার মিনিগ্রিড বিদ্যুৎকেন্দ্র থেকে ১০০ কিলোওয়াট বিদ্যুৎ কিনবে পিডিবি। এজন্য বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (পিডিবি) ও গ্রিন হাউজিং অ্যান্ড এনার্জি লিমিটেডের মধ্যে একটি ক্রয় চুক্তি সই হয়েছে।

Read More »

গ্যাস–সংকটে জ্বলছে না চুলা, ধুঁকছে শিল্প

গ্যাস–সংকটের কারণে এখন রাজধানীর বিভিন্ন জায়গায় চুলা জ্বলছে না। একই পরিস্থিতি শিল্পে। গ্যাসের অভাবে স্বাভাবিক সময়ের মতো কারখানা চালানো যাচ্ছে না, কমছে শিল্পের উৎপাদন। পরিবহন খাতও ভুগছে গ্যাস–সংকটে।

Read More »

Bangladesh Power Pathways Newsletter, August 2022

Welcome to the Bangladesh Power Pathways Newsletter which tracks the narrative and progress in the energy and power nexus of Bangladesh. This monthly newsletter seeks to provide an overview of the discourse in the country’s energy/climate sector.

Read More »

কাতার থেকে আরও এলএনজি চায় বাংলাদেশ

কাতারকে আরও বেশি পরিমাণে তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস (এলএনজি) সরবরাহ করতে অনুরোধ জানিয়েছে বাংলাদেশ সরকার। সোমবার কাতারের দোহায় দুদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় পর্যায়ের বৈঠকে (এফওসি) বাংলাদেশ প্রতিনিধি দলের নেতা পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম এই অনুরোধ জানান।

Read More »
renewable energy for Bangladesh

সৌরবিদ্যুতের বহুবিধ ব্যবহার সম্পর্কে জানে না সাধারণ মানুষ

প্রচারের অভাব, সহজপ্রাপ্য না হওয়ার পাশাপাশি দীর্ঘদিনের অভ্যস্ততা ভাঙতে না পারার কারণে ছোটখাটো কাজে সৌরবিদ্যুৎ ব্যবহার শুরু হচ্ছে না। এখন বাজারে সৌর চার্জার ফ্যান, সৌর বাতি এমনকি সৌর মোবাইল চার্জারও পাওয়া যায়। কিন্তু সাধারণ মানুষ এগুলো ব্যবহার করে না, এমনকি জানেও না। সরকারের টেকসই নবায়নযোগ্য জ্বালানি উন্নয়ন কর্তৃপক্ষও (স্রেডা) বিষয়গুলো প্রচার করে না। বিদ্যুৎ বিভাগের তরফ থেকেও কোনও প্রচারণা নেই। তবে পাওয়ার সেলের কর্মকর্তারা বলছেন, এগুলো জনপ্রিয় করতে উদ্যোগ নেওয়া হবে।

Read More »
wind project

৫৫ মেগাওয়াটের বায়ুনির্ভর বিদ্যুৎকেন্দ্র হচ্ছে মোংলায়

চুক্তি অনুযায়ী, নির্মিত হওয়ার পরবর্তী ২০ বছর সেখান থেকে বিদ্যুৎ কিনবে বিপিডিবি। প্রতি ইউনিট বিদ্যুতের দাম হবে শূন্য দশমিক ১৩২০ মার্কিন ডলার (বাংলাদেশ ব্যাংকের ডলার এক্সচেঞ্জ হিসাবে সাড়ে ১২ টাকা)। আড়াই মেগাওয়াট করে উৎপাদন ক্ষমতার ২২টি টার্বাইন বসবে এই বিদ্যুৎকেন্দ্রে। নির্মাণ করবে চীনের ইনভিশন এনার্জি কোম্পানি লিমিটেড, বাংলাদেশের এসকিউ ট্রেডিং অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং লিমিটেড ও হংকংয়ে নিবন্ধিত কোম্পানি ইনভিশন রিনিউয়েবল এনার্জি বাংলাদেশ লিমিটেড।

Read More »

‘নবায়নযোগ্য জ্বালানির উৎস হিসেবে বায়ুবিদ্যুতের প্রসার বাড়বে’

বিদ্যুৎ জ্বালানি ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছেন, বাংলাদেশে নবায়নযোগ্য জ্বালানির অন্যতম উৎস হিসেবে বায়ুবিদ্যুতের আকার দিনে দিনে আরও  বড় হবে। তিনি বলেন, ‘উপকূলীয় অঞ্চলসহ দেশের ৯টি স্থানে বায়ু বিদ্যুতের সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের উদ্দেশ্যে বায়ু প্রবাহের তথ্য-উপাত্ত (ডাটা) সংগ্রহ করে ওয়াইন্ড ম্যাপিং কার্যক্রম সম্পন্ন করা হয়েছে। সার্বিক উপযুক্ততা যাচাই করে বায়ু বিদ্যুৎ প্রকল্প গ্রহণ করা হবে।’

Read More »
capacirty charge of Bangladesh energy sector

৯০ হাজার কোটি টাকা ক্যাপাসিটি চার্জ

বিদ্যুৎ বিভাগের তথ্য মতে, দেশে বর্তমানে সব বিদ্যুৎকেন্দ্র মিলিয়ে ২৫ হাজার ৭০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন করতে পারে। কিন্তু এ পর্যন্ত দিনে সর্বোচ্চ বিদ্যুৎ উৎপাদন হয়েছে ১৪ হাজার ৭৮২ মেগাওয়াট। কম্পানিগুলোর সঙ্গে সরকারের করা ক্রয় চুক্তি অনুযায়ী, সক্ষমতার পুরো বিদ্যুৎ উৎপাদন বা কেনা না হলেও বিদ্যুৎকেন্দ্রগুলোকে ভাড়া বাবদ নির্দিষ্ট হারে অর্থ (ক্যাপাসিটি চার্জ) পরিশোধ করতে হবে। এই ৯০ হাজার কোটি টাকা সেই অর্থ, যা কম্পানিগুলো বিদ্যুৎ উৎপাদন না করেই পেয়েছে।

Read More »
solar energy for Bangaladesh

জ্বালানিসংকট: বিভিন্ন দেশে বাড়ছে সৌর প্যানেলের চাহিদা

তাপপ্রবাহ ও খরা পরিস্থিতি সংকট আরও বাড়িয়ে দিয়েছে। জ্বালানি সাশ্রয়ে ইউরোপের  বিভিন্ন দেশের সরকার গ্যাস-বিদ্যুতের ব্যবহার কমানো এবং মজুত বাড়ানোর ওপর জোর দিচ্ছে। বেড়েছে জ্বালানির বিলও। গ্যাস ও বিদ্যুতের বর্ধিত খরচ থেকে বাঁচতে এসব দেশের অনেকেই এখন সৌরবিদ্যুৎ ব্যবহারের প্রতি আগ্রহী হয়ে উঠছেন।

Read More »

অনুসন্ধানে বাপেক্স পেয়েছে ১ হাজার কোটি, আমদানিতে ৮৫ হাজার কোটি টাকা

পেট্রোবাংলার সর্বশেষ নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন ও অন্যান্য সূত্রে পাওয়া তথ্য বলছে, গত চার অর্থবছর তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস (এলএনজি) আমদানিতে ব্যয় হয়েছে ৮৫ হাজার কোটি টাকারও বেশি। যদিও জাতীয় গ্রিডে সরবরাহকৃত গ্যাসের ৭৫ শতাংশ আসছে দেশীয় উৎস থেকে। এ সময়ে স্থানীয় গ্যাস অনুসন্ধানে বিনিয়োগের পরিমাণ যৎসামান্যই। রাষ্ট্রায়ত্ত তেল-গ্যাস অনুসন্ধান প্রতিষ্ঠান বাপেক্সকে একই সময়ে কূপ খনন ও জরিপে দেয়া অর্থের পরিমাণ ১ হাজার কোটি টাকার বেশি নয়। গ্যাস অনুসন্ধান কার্যক্রম স্থবির রেখে এলএনজি আমদানিবাবদ বিপুল অর্থের সংস্থান করতে গিয়ে অর্থ সংকটে পড়েছে পেট্রোবাংলা। অন্যদিকে অনুসন্ধান ও উত্তোলনে মনোযোগী না হওয়ায় স্থানীয় গ্যাসের মজুদ প্রায় শেষের পথে।

Read More »

বদলে যাচ্ছে জ্বালানির বাজার, আসছে কানাডা

বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ তেল ও গ্যাস রপ্তানিকারক দেশ হচ্ছে রাশিয়া। ইউরোপের ৪০ শতাংশ গ্যাস আসে রাশিয়া থেকে। এই গ্যাস দিয়ে তাদের শিল্পকারখানা পরিচালিত হয়, সেই সঙ্গে শীতকালে ঘর গরম রাখতে গ্যাসের বিকল্প নেই। কাজেই রাশিয়ার জ্বালানিতে নিষেধাজ্ঞা দিয়ে ইউরোপ ভালোরকম বিপদে পড়েছে। আন্তর্জাতিক বাজারে তেল-গ্যাসের দাম বেড়ে গেছে।

Read More »

এলএনজি নিয়ে গভীর বিপদে বাংলাদেশ ও পাকিস্তান

স্পট মার্কেটে তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাসের (এলএনজি) ঊর্ধ্বমূল্য আমদানিকারক দেশগুলোর জন্য উদ্বেগের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। প্রতি মিলিয়ন ব্রিটিশ থার্মাল ইউনিট (এমএমবিটিইউ) এলএনজি এখন কিনতে হচ্ছে ৫৭ ডলারের বেশি দামে। গত দুই মাসে জ্বালানি পণ্যটির দাম বেড়েছে  প্রায় ১৬৪ শতাংশ। এতে বিপদে পড়েছে দক্ষিণ এশিয়ার এলএনজি আমদানিকারক দেশগুলো। জ্বালানি পণ্যটির বর্তমান পরিস্থিতি বিশেষ করে বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের জন্য বড় ধরনের বিপত্সংকুল পরিস্থিতি তৈরি করেছে বলে খাতসংশ্লিষ্ট আন্তর্জাতিক সংস্থার পর্যবেক্ষণে উঠে এসেছে।

Read More »

দীর্ঘমেয়াদি চুক্তিতে এলএনজি আনতে ব্যয় হবে ২৮ হাজার কোটি টাকা

অস্বাভাবিক দাম বেড়ে যাওয়ায় স্পট মার্কেট থেকে তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস (এলএনজি) কেনা বন্ধ রেখেছে জ্বালানি বিভাগ। তবে জাতীয় গ্রিডে দৈনিক ৪৮০ থেকে ৫০০ এমএমএসসিএফ গ্যাস সরবরাহের লক্ষ্যে ২০২২-২৩ অর্থবছরে ৫৬ কার্গো এলএনজি আমদানির সিদ্ধান্ত নিয়েছে পেট্রোবাংলা। দীর্ঘমেয়াদি চুক্তির আওতায় কাতার ও ওমান থেকে সেই গ্যাস আনতে মোট ব্যয় হবে প্রায় ২৮ হাজার কোটি টাকা। আর সেটি বিক্রি করে পাওয়া যাবে কেবল ১৮ হাজার ৩২১ কোটি টাকা। ঘাটতির সাড়ে ৯ হাজার কোটিরও বেশি টাকা সরকারকে ভর্তুকি দিতে হবে। সম্প্রতি পেট্রোবাংলার অনুকূলে ভর্তুকির এ অর্থ বরাদ্দের জন্য অর্থ মন্ত্রণালয়ে চিঠি পাঠিয়েছে জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগ।

Read More »

আমদানিনির্ভর জ্বালানিনীতির কারণে বিদ্যুৎ খাতে ঝুঁকি বাড়ছে

চলমান জ্বালানিসংকট বিবেচনায় বাংলাদেশকে এলএনজির মতো জীবাশ্ম জ্বালানিতে নয়, বরং আসন্ন বিদ্যুতের মহাপরিকল্পনায় নবায়নযোগ্য শক্তি ও দেশীয় সক্ষমতা বৃদ্ধির জোর পরামর্শ দিয়েছেন টেকসই উন্নয়ন বিশেষজ্ঞরা। প্রথম আলোর হেড অব অনলাইন শওকত হোসেনের সঞ্চালনায় ‘জ্বালানিসংকটের টেকসই সমাধানে দ্রুত উদ্যোগ প্রয়োজন’ শিরোনামে প্রথম আলো ডিজিটালের আয়োজনে অনলাইন আলোচনায় এ কথা বলেন বক্তারা। শওকত হোসেনের সঙ্গে আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) সাবেক অধ্যাপক ও জ্বালানি ও টেকসই উন্নয়ন বিষয়ে বিশেষজ্ঞ ইজাজ হোসেন ও সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগের (সিপিডি) গবেষণা পরিচালক খন্দকার গোলাম মোয়াজ্জেম।

Read More »

এবার এলএনজি নিয়েও উদ্বেগ

দেশের দুটি ভাসমান এলএনজি টার্মিনালের দৈনিক সক্ষমতার প্রায় অর্ধেকে নেমে এসেছে গ্যাস রূপান্তরকরণের (রিগ্যাসিফিকেশন) পরিমাণ। উৎপাদন অর্ধেকে নামলেও পূর্ণ সক্ষমতার জন্য মাশুল (ক্যাপাসিটি চার্জ) দিতে হচ্ছে সরকারকে। এ বাবদ দিনে ২ কোটি টাকার বেশি (২ লাখ ২ হাজার ৫০০ ডলার) পরিশোধ করা হচ্ছে। ডলার সংকটের মধ্যে উৎপাদন ছাড়াই এ বিপুল পরিমাণ অর্থ বৈদেশিক মুদ্রায় পরিশোধের ফলে বিদ্যুৎ খাতের পর এবার গ্যাস খাতেও ক্যাপাসিটি চার্জ নিয়ে ‘মাথাব্যথা’ তৈরি হয়েছে।

Read More »

ক্যাপাসিটি চার্জ, ভর্তুকি বন্ধ ও ঋণখেলাপির চ্যালেঞ্জে সরকার

বিদ্যুতের ক্যাপাসিটি চার্জ ও ব্যাংকের খেলাপি ঋণ এবং বাজেট ভর্তুকি নিয়ে রীতিমতো কঠিন চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছে সরকার। অসহনশীল এ পরিস্থিতি থেকে বেরোনোর পথ খুঁজছে সরকার। বিদ্যুৎ খাতের ক্যাপাসিটি চার্জ দেশের অর্থনীতির জন্য যেন গলার কাঁটা হয়ে দাঁড়িয়েছে।

Read More »
Clean energy for Bangladesh

ব্যয় কমে অর্ধেক, বিশ্বজুড়ে জনপ্রিয় হচ্ছে সৌর বিদ্যুৎ

একদিকে জলবায়ু পরিবর্তন রোধে নির্মল জ্বালানির চাহিদা, অন্যদিকে বিশ্বজুড়ে সাম্প্রতিক দাবদাহে বিদ্যুৎ উৎপাদন বৃদ্ধির প্রয়োজনীয়তা—এ দুই চাওয়া সামনে নবায়নযোগ্য জ্বালানিতে ঝুঁকছে বিশ্ব। এতে খরচ কমে আসায় দিন দিন জনপ্রিয় হয়ে উঠছে সৌর প্যানেল। আন্তর্জাতিক জ্বালানি সংস্থা (আইইএ) জানায়, প্যারিস জলবায়ু লক্ষ্যমাত্রা পূরণে এ দশকে সৌর প্যানেলের ব্যবহার উল্লেখযোগ্য হারে বাড়বে। প্যারিস চুক্তি অনুযায়ী তাপমাত্রা ১.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসে সীমাবদ্ধ রাখা হবে।

Read More »

নবায়নযোগ্য জ্বালানির সম্ভাবনা এখনো অধরা

জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবেলা এবং একই সঙ্গে বিদ্যুতের চাহিদা মেটাতে নবায়নযোগ্য জ্বালানিতে গুরুত্ব দিচ্ছে বিশ্বের উন্নত দেশগুলো। এরই মধ্যে অনেক দেশ ব্যবহৃত জ্বালানির ৩০ শতাংশ পর্যন্ত নবায়নযোগ্য জ্বালানি থেকে জোগান দিচ্ছে। বাংলাদেশে গত এক যুগে বিদ্যুৎ খাতে অভাবনীয় সাফল্য এলেও নবায়নযোগ্য জ্বালানি উৎস থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদন একেবারেই সামান্য।

Read More »

ব্লুমবার্গের প্রতিবেদন: দেশে বিদ্যুৎ সংকট ২০২৬ সাল পর্যন্ত

চলমান বিদ্যুৎ সংকট বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের গতিও কমিয়ে দিতে পারে। এ সংকট থাকতে পারে ২০২৬ সাল পর্যন্ত। বিশ্ববাজারে বিদ্যুৎ উৎপাদনের প্রধান উপাদান প্রাকৃতিক গ্যাসের সরবরাহ কমে যাওয়ায় এ সংকট সৃষ্টি হয়েছে। গতকাল সোমবার নিউইয়র্কভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ব্লুমবার্গের প্রতিবেদনে এসব কথা উল্লেখ করা হয়। প্রতিবেদনের তথ্য অনুযায়ী, বাংলাদেশ এ বছর স্পট ভিত্তিতে প্রায় ৩০ শতাংশ এলএনজি আমদানি করেছে; গত বছর যা ছিল ৪০ শতাংশের বেশি।

Read More »

ক্যাপাসিটি চার্জে যুক্ত হচ্ছে এলএনজিনির্ভর তিন বিদ্যুৎকেন্দ্র

বিদ্যুৎ ক্রয় চুক্তি অনুযায়ী উৎপাদন না হলেও বিদ্যুৎকেন্দ্রগুলোকে শুধু সক্ষমতার জন্য নির্দিষ্ট হারে অর্থ (ক্যাপাসিটি চার্জ) পরিশোধ করতে হচ্ছে বিদ্যুৎ বিভাগকে। শুধু বসে থাকা বিদ্যুৎকেন্দ্রগুলোর ক্যাপাসিটি চার্জ পরিশোধ করতে গিয়েই প্রতি বছর বিপুল পরিমাণ অর্থ ব্যয় হচ্ছে বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের (বিপিডিবি)। বসিয়ে রেখে ক্যাপাসিটি চার্জ পরিশোধের এ তালিকায় নতুন করে যুক্ত হতে যাচ্ছে সামিট, ইউনিক ও রিলায়েন্সের ১ হাজার ৯০০ মেগাওয়াটের বেশি সক্ষমতার এলএনজিভিত্তিক আরো তিনটি বিদ্যুৎকেন্দ্র।

Read More »

জ্বালানির কথা না ভেবেই বিদ্যুৎকেন্দ্র বানানো হয়েছে

স্বল্প মেয়াদে করণীয়র মধ্যে সরকার জ্বালানি সাশ্রয়ে যেসব উদ্যোগ নিয়েছে, সেগুলো আরও পরিকল্পিত ও জোরদারভাবে করতে হবে। সরকারি গাড়ি ব্যবহারে ২০ শতাংশ সাশ্রয়ের কথা বলা হয়েছে। এ ক্ষেত্রে অন্তত ৫০ শতাংশ সাশ্রয়ী হওয়ার সুযোগ আছে। দীর্ঘমেয়াদি করণীয় হচ্ছে জ্বালানিনীতির পরিবর্তন। আমাদের জ্বালানিনীতি সাধারণত বিদেশিরা এসে করে দেয়। দেশি বিশেষজ্ঞদের মোটেই যুক্ত করা হয় না। রাজনৈতিক দল কিংবা গোষ্ঠীস্বার্থ নয়; দেশের ও মানুষের স্বার্থে যেটা ভালো হবে, সেটাই করতে হবে।

Read More »

সরকারের ভুল নীতি ও দুর্নীতির কারণে জ্বালানি ও বিদ্যুৎ খাতের সংকট: জাতীয় কমিটি

জ্বালানি ও বিদ্যুৎ খাতে দেশি–বিদেশি বিভিন্ন গোষ্ঠীর স্বার্থ রক্ষা করতে গিয়ে বর্তমান সরকারের ভুলনীতি ও দুর্নীতি এই সংকট তৈরি করেছে বলে মনে করে তেল-গ্যাস-খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটি। উদ্দেশ্যমূলক ভুলনীতি ও দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিদের শাস্তি দাবি করেছে সংগঠনটি। তারা বলছে, এর ফলে কমিশনভোগী এজেন্ট ও কিছু দেশি–বিদেশি গোষ্ঠী লাভবান হয়েছে ও হচ্ছে।

Read More »

নয় মাসে বিদ্যুৎকেন্দ্রের ক্যাপাসিটি চার্জ ১৬ হাজার ৭৮৫ কোটি টাকা

দেশে বর্তমানে বিদ্যুৎ উৎপাদন সক্ষমতা ২৫ হাজার মেগাওয়াটের কিছু বেশি। তবে ব্যবহার হয় মাত্র সাড়ে ১২ হাজার মেগাওয়াট। অতিরিক্ত সক্ষমতা বসিয়ে রাখতে হয়। আর এ সক্ষমতা বসিয়ে রাখা হলেও এর বিপরীতে ক্যাপাসিটি চার্জ বা সক্ষমতার ব্যয় হিসেবে বিপুল পরিমাণ অর্থ গুনতে হচ্ছে সরকারকে। গত অর্থবছরের (২০২১-২২) প্রথম নয় মাসেই (জুলাই-মার্চ) বিদ্যুৎকেন্দ্রগুলোর জন্য সক্ষমতা ব্যয় বাবদ সরকারকে গুনতে হয়েছে ১৬ হাজার ৭৮৫ কোটি টাকা। বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির বৈঠকে গতকাল বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের (বিপিডিবি) পক্ষ থেকে এ কথা জানানো হয়েছে।

Read More »

অন্ধকারাচ্ছন্ন পথে দেশের বিদ্যুৎ-জ্বালানি খাত!

জ্বালানি সংকট নিয়ে কিছুদিন ধরেই আলোচনা চলছে। আন্তর্জাতিক বাজারে ঊর্ধ্বমুখী থাকার জন্য বড় অঙ্কের লোকসান ছাড়াও ডলার সংকটে জ্বালানি তেল আমদানি ব্যাহত হচ্ছে। এজন্য কৃচ্ছ সাধন নীতির কথা বলা হচ্ছিল। পাশাপাশি বিদ্যুৎ খাতে গ্যাস-তেল সরবরাহ কমিয়ে লোডশেডিং শুরু করা হয়। তাতেও জ্বালানি সংকট নিরসনে খুব একটা সুবিধা হয়নি।

এদিকে উচ্চ মূল্যের তেল দিয়ে বিদ্যুৎ উৎপাদন করে কম দামে বিক্রি করায় এ খাতেও লোকসানের বোঝা ভারী হচ্ছে। পাশাপাশি বেড়ে গেছে ক্যাপাসিটি চার্জের বোঝা। সরকার ভর্তুকি বন্ধ করে দিয়েছে বিদ্যুৎ খাতে। এতে বেসরকারি খাতের বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করতে পারছে না বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (পিডিবি)। সব মিলিয়ে বিদ্যুৎ-জ্বালানি খাতে অনেকটা অন্ধকারাচ্ছন্ন পথের সম্মুখীন বাংলাদেশ।

Read More »

বিদ্যুৎ উৎপাদনে নবায়নযোগ্য শক্তিতে চোখ সরকারের

বর্তমানে দেশে বিদ্যুৎ উৎপাদনের সক্ষমতা প্রায় ২৪ হাজার মেগাওয়াট। এর মধ্যে নবায়নযোগ্য উৎস ব্যবহার করে উৎপাদন সক্ষমতা তিন শতাংশের মতো। বিশ্বব্যাপী বাড়ছে বিদ্যুৎ উৎপাদনের খরচ। দ্বিগুণ হওয়ার আশঙ্কাও করছেন কেউ কেউ। খরচ কমাতে নবায়নযোগ্য শক্তি ব্যবহারে গুরুত্ব বাড়াচ্ছে সরকার। জোর দিচ্ছে প্রাকৃতিক উৎস- সূর্যের আলো ও তাপ, বায়ুপ্রবাহ, জলপ্রবাহ, জৈবশক্তি, শহুরে বর্জ্য ইত্যাদি নবায়নযোগ্য শক্তির উৎস ব্যবহার করে বিদ্যুৎ উৎপাদনে। এতে মাথায় থাকছে পরিবেশের সুরক্ষার বিষয়টিও।

Read More »

জ্বালানি খাতে আমদানিনির্ভর পরিকল্পনার খেসারত দিচ্ছে কি বাংলাদেশ

২০১০ সালে জাপানের উন্নয়ন-সহযোগী প্রতিষ্ঠান জাপান ইন্টারন্যাশন্যাল কো-অপারেশনের (জাইকা) সহায়তায় বিদ্যুৎ খাতের মহাপরিকল্পনা বা ‘পাওয়ার সিস্টেম মাস্টারপ্ল্যান-২০১০’ গ্রহণ করে বাংলাদেশ। এতে গ্যাসভিত্তিক বিদ্যুৎ উৎপাদনে জোর দেয়া হলেও এজন্য প্রয়োজনীয় জ্বালানির সংস্থান নিয়ে স্পষ্ট কোনো রূপরেখা দেয়া হয়নি। অবশ্য এ মহাপরিকল্পনা ২০১৬ সালে সংশোধন করা হয়। সংশোধিত পরিকল্পনা ধরে বিদ্যুৎ খাত কাজ করলেও পদ্ধতিগত তেমন কোনো উন্নয়ন হয়নি।

Read More »

অতিরিক্ত আমদানিনির্ভরতাই জ্বালানি–সংকটের বড় কারণ

বিশেষজ্ঞরা বলেছিলেন, গ্যাস দ্রুত ফুরিয়ে যাওয়ার তথ্য প্রচার করার কারণ হচ্ছে উচ্চ মূল্যের এলএনজি আমদানির যৌক্তিকতা প্রতিষ্ঠা করা। শেষ পর্যন্ত তা–ই করা হয়েছে। এভাবেই জ্বালানি খাতকে প্রায় পুরোপুরি আমদানিনির্ভর করা হয়, যা ঝুঁকি বাড়িয়ে দেয়। দেশের জ্বালানি ও বিদ্যুৎ খাতের সব পরিকল্পনাই এখন এলএনজির ওপর। এই এলএনজি পুরোটাই আমদানি করতে হয়। এ জন্য টার্মিনাল নির্মাণ ও পাইপলাইন তৈরিতে বিপুল পরিমাণ বিনিয়োগ করা হচ্ছে। সরকার নিচ্ছে বড় বড় প্রকল্প।

Read More »

‘২০৫০ সালের মধ্যে শূন্য কার্বন নিঃসরণ বাংলাদেশের জন্য প্রযোজ্য নয়’

তৌফিক-ই-এলাহী চৌধুরী বলেন, ‘২০৪১ সালের মধ্যে দেশের ৪০ শতাংশ বিদ্যুৎ ক্লিন সোর্স থেকে উৎপাদনের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে, নবায়নযোগ্য উৎস থেকে নয়।’ ‘পারমাণবিক উৎস ভবিষ্যতের ক্লিন এনার্জির মূল উৎস। পারমাণবিক উৎস থেকে উৎপাদনেও অনেক সময় সৌরশক্তির তুলনায় কম কার্বন নিঃসরণ হয়ে থাকে। এছাড়া নতুন নতুন প্রযুক্তি ব্যবহারে আমাদের অগ্রাধিকার থাকবে,’ যোগ করেন তিনি। তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী জাইকাকে প্রস্তাবিত মাস্টার প্ল্যান থেকে ‘শূন্য নিঃসরণ’ অংশ বাদ দিতে এবং ‘বাংলাদেশের জন্য লাগসই প্রস্তাব’ রাখার অনুরোধ করেন।

Read More »

এলএনজির চড়া দাম অর্থ সংকটে পেট্রোবাংলা

আন্তর্জাতিক বাজারে তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাসের (এলএনজি) দাম এখন ৪০ ডলার ছুঁইছুঁই, দুই সপ্তাহ ধরে আবারো ঊর্ধ্বমুখী ধারায় জ্বালানি পণ্যটির দাম। তবে শুধু পণ্যটির উচ্চমূল্যই নয়, স্পট থেকে এলএনজি কিনতে যে পরিমাণ অর্থের প্রয়োজন তারও সংস্থান করতে পারছে না পেট্রোবাংলা। এ পরিস্থিতিতে স্পট মার্কেট থেকে এলএনজি আমদানির সিদ্ধান্ত থেকে আপাতত সরে এসেছে জ্বালানি বিভাগ। জ্বালানি পণ্যটির দাম না কমা পর্যন্ত দেশীয় উৎস থেকেই চাহিদা পূরণের পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে।

Read More »
power and energy sector of Bangladesh

অতিরিক্ত সৌর বিদ্যুৎ যুক্ত হবে জাতীয় গ্রিডে

বিশ্বের প্রথম পিয়ার-টু-পিয়ার বিদ্যুৎ বিনিময় নেটওয়ার্কের সূচনাকারী সোলশেয়ার, শক্তি ফাউন্ডেশনের সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে জ্বালানি উদ্ভাবনে নিয়ে এসেছে আরেকটি যুগান্তকারী সংযোজন। যুক্তরাজ্য সরকারের অর্থায়নে, সোলশেয়ার এবং শক্তি ফাউন্ডেশন বাংলাদেশের একটি গ্রামীণ অঞ্চলে ‘পিটুপি’ সোলার মাইক্রোগ্রিডকে একটি পয়েন্ট অব কমন কাপলিং (পিসিসি) এর মাধ্যমে জাতীয় গ্রিডের সঙ্গে সংযুক্ত করবে।

Read More »

চুক্তির বাইরে অতিরিক্ত ১০ লাখ টন এলএনজি দেবে না কাতার

দেশের চলমান গ্যাসসংকট কাটাতে কাতার ও ওমান থেকে তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস (এলএনজি) আমদানি করা হচ্ছে। বর্তমানে দেশীয় গ্যাসের উৎপাদন কমে যাওয়া এবং গ্যাসের চাহিদা বাড়ায় চলমান দীর্ঘমেয়াদি চুক্তির বাইরে কাতার থেকে অতিরিক্ত ১০ লাখ টন এলএনজি নেওয়ার প্রস্তাব দিয়েছিল বাংলাদেশ। কিন্তু কাতার জানিয়েছে, ২০২৫ সালের আগে বিদ্যমান চুক্তির আওতায় অতিরিক্ত এলএনজি সরবরাহ করতে পারবে না। সম্প্রতি বাংলাদেশকে এই সিদ্ধান্ত জানিয়ে দিয়েছে কাতার।

Read More »

পাওয়ার সিস্টেম মাস্টারপ্ল্যান-২০১৬ অনুযায়ী বিদ্যুৎ উৎপাদন খাত ২০৩০ সালের মধ্যে ৪০ ভাগ আমদানিকৃত জ্বালানির ওপর নির্ভরশীল হয়ে পড়বে

আমাদের পাওয়ার সিস্টেম মাস্টারপ্ল্যান-২০১৬, যদি দেখি তাহলে আমরা দেখব বাংলাদেশ যে ভবিষ্যতে পুরোপুরি জ্বালানি আমদানিনির্ভর একটি দেশে পরিণত হবে, তার ইঙ্গিত সেখানে রয়েছে। সেখানে দেখানো হয়েছে যে বিদ্যুৎ উৎপাদন খাত ২০৩০ সালের মধ্যে ৪০ ভাগ আমদানিকৃত জ্বালানির ওপর নির্ভরশীল হয়ে পড়বে এবং ২০৪০ সালের মধ্যে ৯০ ভাগ আমদানিনির্ভর হবে। মানে আমাদের পরিকল্পনার মধ্যেই এমনটি রয়েছে।

Read More »

চার গুণ দামে এলএনজি কিনে ধুঁকছে পেট্রোবাংলা

তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস (এলএনজি) আমদানির ক্ষেত্রে ‘দীর্ঘমেয়াদি চুক্তি’ বা লং-টার্ম কন্ট্রাক্ট আন্তর্জাতিক বাজারে একটি অতি পরিচিত পদ্ধতি। এই পদ্ধতির বড় সুবিধা হলো, বাজারে স্বল্প মেয়াদে দাম ওঠানামা করলেও চুক্তিতে নির্ধারিত দামেই গ্যাস পাবে ক্রেতা। কিন্তু এই সুযোগ হেলায় ফেলে স্পট মার্কেট থেকে চার গুণ বেশি দামে এলএনজি আমদানি করছে পেট্রোবাংলা।

Read More »

খাদ্যের ভর্তুকির টাকা এলএনজিতে যাচ্ছে

নিম্ন আয়ের ৬২ লাখ ৫০ হাজার পরিবারকে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচি এবং ওএমএস খাতে ভর্তুকি দেয় সরকার। এই খাতে আগামী ২০২২-২৩ অর্থবছরের বাজেটের যে প্রাথমিক প্রাক্কলন করা হয়েছিল তা থেকে এখন ৭৮০ কোটি টাকা কমানো হয়েছে। এই অর্থ এলএনজি খাতের ভর্তুকিতে সমন্বয় করার প্রস্তাব করা হচ্ছে। এলএনজি ভর্তুকির চাপ সামলাতে এ উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে।

Read More »
renewable energy for Bangladesh

জলবায়ু পরিবর্তনের পরিপ্রেক্ষিতে নবায়নযোগ্য জ্বালানির গুরুত্ব

২০১৯ সালের ২৮ এপ্রিল জলবায়ু কর্মী, বিজ্ঞানী ও বিশ্লেষক ম্যাট মাকার্থ এক সম্মেলনে বলেছিলেন, বিদ্যমান প্যারাডাইমের মধ্যে বিশ্ব প্রাকৃতিক ও মানবিক জরুরি অবস্থার মুখোমুখি হচ্ছে। তার এ মূল্যায়ন অধিকাংশ জলবায়ু কর্মী ও বিজ্ঞানীদের বিশেষ মনোযোগ আকর্ষণ করেছিল—প্রকৃতির সঙ্গে মানবিকতার সম্ভাবনাময় সম্পর্ক প্রতিষ্ঠাবিষয়ক এক চুক্তিতে পৌঁছতে যারা তখন প্যারিসে সমবেত হয়েছিলেন।

Read More »

২০২৫ সালে সোলারে উৎপাদন হবে ১৪০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ

বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছেন, ‘২০২৫ সালের মধ্যে ২৮টি নির্মাণাধীন সোলার বিদ্যুৎকেন্দ্র থেকে আরও ১৪০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ পাওয়া যাবে।’ তিনি বলেন, বাংলাদেশ নবায়নযোগ্য জ্বালানি থেকে ৭৮৮ দশমিক ১৬ মেগাওয়াট বিদ্যুতের মধ্যে ৫৫৪ দশমিক ১৭ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ সোলার থেকে আসে। দেশে ১২ শতাংশ জনগণকে ৬ দশমিক ২ মিলিয়ন সোলার হোম সিস্টেমের মাধ্যমে পরিষ্কার বিদ্যুৎ দেওয়া হচ্ছে।

Read More »