NEWSLETTER

BN

Newsletter Subscription

FOLLOW US

Bangladesh's largest solar power facility Teesta Solar Ltd has transmitted around 443.8 million units of electricity to the national grid in the past 15 months. Unlike conventional power plants that rely on gas, coal, or fossil fuels, the plant generates electricity without requiring fuel or incurring raw material costs -- a capability it is expected to maintain until 2043.
"Bangladesh may opt for gas-fired peaking plants instead of only base-load plants to accommodate more renewable energy. It may seek to limit the LNG demand growth rate by frontloading energy efficiency in industrial processes and captive generation," said the IEEFA.
The Power Division is gearing up implementation of 125 green energy projects as it pursues a goal to meet 10% of the country's power needs from renewables by 2025. The generation capacity of these projects will be 12,047 megawatts, more than the country's present demand in winter and 70% of summer time consumption, according to Power Division officials.

BANGLADESH POWER PATHWAYS IN SOCIAL MEDIA

Cover for Bangladesh Power Pathways
3,217
Bangladesh Power Pathways

Bangladesh Power Pathways

The latest news and research on the most efficient ways to power Bangladesh's path to prosperity. Ru

View on Facebook
Power and Energy Sector in the National Budget FY2025: Challenges and Proposed Measures ... See MoreSee Less
View on Facebook
আরও একটি সুযোগ!বাংলাদেশের আসন্ন জাতীয় বাজেটেআমদানিকৃত এলএনজিতে নির্ভরতা কমিয়েটেকসই নবায়নযোগ্য জ্বালানি খাতকে আরও এগিয়ে নিতেএই খাতে বরাদ্দ উল্লেখযোগ্য বাড়িয়ে আলাদা তহবিল তৈরির এখনই সময়।বিস্তারিত 👉 www.thedailystar.net/opinion/views/news/the-next-budget-should-push-clean-and-secure-energy-3607436 ... See MoreSee Less
View on Facebook
নতুন সমীক্ষা: এলএনজি আমদানিকে ঘিরে সামগ্রিক উন্নয়নে বাংলাদেশের যে পরিকল্পনা, সেটা বৈশ্বিক জ্বালানি বাজারের অস্থিরতা, দেশের নাজুক আর্থিক অবস্থা, আর স্থানীয় মুদ্রার অবমূল্যায়নজনিত পরিস্থিতির জন্য মোটেও প্রস্তুত ছিল না বলে সাম্প্রতিক এক গবেষণায় উঠে এসেছে। তবে সুসংবাদ হলো আমাদের শিল্প প্রতিষ্ঠানগুলোতে আধুনিক গ্যাস চালিত জেনারেটর আর জেনারেটর থেকে উৎপাদিত বর্জ্য তাপ ব্যবহার করে বাড়তি বিদ্যুৎ উৎপাদন করলে এলএনজি আমদানিতে বছরে বাংলাদেশের ৪৬ কোটি ডলার সাশ্রয় হবে। বিস্তারিত নিচের প্রকাশিত খবরে👇 www.kalerkantho.com/.../national/2024/05/13/1387475 ... See MoreSee Less
View on Facebook
বড় শিল্পকারখানায় নিজস্ব উৎপাদিত বিদ্যুৎকেন্দ্রগুলো ‘ক্যাপটিভ’নামে পরিচিত। এসব কেন্দ্রে গ্যাস থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদিত হয়। এসব বিদ্যুৎকেন্দ্রে জ্বালানি দক্ষ জেনারেটর ব্যবহার করা গেলে বাংলাদেশের বছরে তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস (এলএনজি) আমদানির খরচ কমতে পারে ৪৬ কোটি ডলার, এমনটাই জানিয়েছে ইনস্টিটিউট ফর এনার্জি ইকোনমিকস অ্যান্ড ফাইন্যান্সিয়াল অ্যানালাইসিস (আইইএফএ)। বিস্তারিত নিচের লিংকে 👇www.prothomalo.com/bangladesh/1f4v3r3bu8 ... See MoreSee Less
View on Facebook
বড় শিল্পকারখানায় নিজস্ব উৎপাদিত বিদ্যুৎকেন্দ্রগুলো ‘ক্যাপটিভ’নামে পরিচিত। এসব কেন্দ্রে গ্যাস থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদিত হয়। এসব বিদ্যুৎকেন্দ্রে জ্বালানি দক্ষ জেনারেটর ব্যবহার করা গেলে বাংলাদেশের বছরে তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস (এলএনজি) আমদানির খরচ কমতে পারে ৪৬ কোটি ডলার, এমনটাই জানিয়েছে ইনস্টিটিউট ফর এনার্জি ইকোনমিকস অ্যান্ড ফাইন্যান্সিয়াল অ্যানালাইসিস (আইইএফএ)। বিস্তারিত দেখুন নিচের ভিডিওতে 👇www.prothomalo.com/bangladesh/1f4v3r3bu8 ... See MoreSee Less
View on Facebook
শিল্প খাতে খরচ বাঁচাসহ গ্যাস-চালিত ক্যাপটিভ বিদ্যুৎ জেনারেটরের দক্ষতা বৃদ্ধি ও গ্রিড অবকাঠামোয় বিনিয়োগ বাংলাদেশের জন্য আশীর্বাদ হবে বলে নতুন এক গবেষণায় বলা হয়েছে। উচ্চ-দক্ষতাসম্পন্ন আধুনিক জেনারেটর ব্যবহারসহ অন্যান্য পদক্ষেপ এলএনজি আমদানিতে বাংলাদেশের বছরে ৪৬ কোটি ডলার সাশ্রয় করবে। এতে জ্বালানি নীতিতে নবায়নযোগ্য শক্তি ব্যবহার বাড়াতেও ভূমিকা রাখবে। ... See MoreSee Less
View on Facebook
বৈশ্বিক জ্বালানি বাজারে অস্থিতিশীলতার কারণে এলএনজি আমদানি না বাড়িয়ে বরং জ্বালানি ব্যবহারে দক্ষতা অর্জন ও গ্রিড আধুনিকায়নের মাধ্যমে বাংলাদেশ তাদের জ্বালানি পরিকল্পনা বদলে নিতে পারে বলে নতুন এক গবেষণায় পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। গ্রিড অবকাঠামোতে বিনিয়োগের মাধ্যম বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ধরে রাখার পাশাপাশি বৈশ্বিক টেকসই লক্ষ্যমাত্রার সাথেও বাংলাদেশ এগিয়ে যেতে পারে,বলছে ইনস্টিটিউট ফর এনার্জি ইকোনমিক্স অ্যান্ড ফাইন্যান্সিয়াল এনালিসিস।আপনিও কি মনে করেন টেকসই উন্নয়নে বাংলাদেশের এলএনজি আমদানি কমানো প্রয়োজন? কমেন্টে মূল্যবান মতামত জানিয়ে দিন 👇 ... See MoreSee Less
View on Facebook
নবায়নযোগ্য জ্বালানিতে যথেষ্ঠ বিনিয়োগ না থাকায় বাংলাদেশ জ্বালানি খাতে স্বাবলম্বী হতে পারছে না। জ্বালানি নীতেতে টেকসই পরিবর্তন না আনলে জীবাশ্ম জ্বালানি খাতে ব্যয়বহুল অবকাঠামো নির্মাণে আমাদের আর্থিক চাপ আরও বাড়বে। এলএনজি ব্যবহারে দক্ষতা আরও বাড়ানোর মাধ্যমেই এই পরিবর্তন আসতে পারে , এমনটাই বলা হয়েছে ইনস্টিটিউট ফর এনার্জি ইকোনমিক্স অ্যান্ড ফাইন্যান্সিয়াল এনালিসিসের নতুন এক গবেষণা প্রতিবেদনে।জ্বালানি সুরক্ষিত বাংলাদেশের সমর্থনে এই পোস্টটিতে আপনার মূল্যবান মতামত কমেন্টে জানিয়ে দিন 👇 ... See MoreSee Less
View on Facebook
গ্যাসচালিত ক্যাপটিভ বিদ্যুৎ জেনারেটরের দক্ষতা ১০ শতাংশ বাড়ালে বাংলাদেশের জ্বালানি খাতে আমদানি ব্যয় ৪৬ কোটি ডলার সাশ্রয় হবে। এলএনজি আমদানিতে ব্যয়বহুল অবকাঠামো না বাড়িয়ে বরং সেই বিনিয়োগ গ্রিড অবকাঠামো পরিবর্তনে কাজে লাগালে, তা বাংলাদেশের জ্বালানি ও অর্থনৈতিক নিরাপত্তাকে গতি দিতে পারে বলে নতুন এক গবেষণা বলছে। এতে নবায়নযোগ্য শক্তির একীভূতকরণের সুযোগও সৃষ্টি হবে, যা হতে পারে জ্বালানি খাতকে আরও টেকসই করার চালিকাশক্তি।জ্বালানি সুরক্ষিত বাংলাদেশের সমর্থনে এই পোস্টটিতে আপনার মূল্যবান মতামত কমেন্টে জানিয়ে দিন 👇 ... See MoreSee Less
View on Facebook
বাংলাদেশের অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি, জ্বালানি নিরাপত্তা বৃদ্ধি এবং নবায়নযোগ্য শক্তিকে অন্তর্ভুক্ত করার হার বাড়াতে আরও অনেক গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপের পাশাপাশি জ্বালানি-দক্ষতাসম্পন্ন গ্যাস-চালিত জেনারেটরের প্রয়োজনীয়তার কথা উঠে এসেছে ইনস্টিটিউট ফর এনার্জি ইকোনমিক্স অ্যান্ড ফাইন্যান্সিয়াল এনালিসিসের এক নতুন গবেষণায়। এই পদক্ষেপগুলো এগিয়ে নিতে নীতিগত নির্দেশনা ইতিমধ্যে টেকসই ও নবায়নযোগ্য শক্তি উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের রয়েছে। এখন শুধু আরও বৃহত্তর সহযোগীতা ও আর্থিক প্রণোদনা দিলে এই রূপান্তর আরও গতিশীল হবে, টেকসই ভবিষ্যতের পথে দেশের জ্বালানি খাত দ্রুতগতিতে এগোবে।জ্বালানি সুরক্ষিত বাংলাদেশের সমর্থনে এই পোস্টটিতে আপনার মূল্যবান মতামত কমেন্টে জানিয়ে দিন 👇 ... See MoreSee Less
View on Facebook
অতিমাত্রায় এলএনজি আমদানি বাংলাদেশকে নিয়মিত জ্বালানির দাম বৃদ্ধি, এলএনজি সরবরাহ সংক্রান্ত সমস্যার দুষ্টচক্রে আটকে দেওয়া এবং দেশের অর্থনৈতিক রূপান্তরকে থমকে দেওয়ার ঝুঁকিও সৃষ্টি করতে পারে,” এক গবেষণায় এমনটাই বলেছেন ইনস্টিটিউট ফর এনার্জি ইকোনমিকস অ্যান্ড ফাইন্যান্সিয়াল এনালিসিসের প্রধান গবেষক শফিকুল আলম। গবেষণায় সতর্ক করে বলা হয়েছে অতিরিক্ত এলএনজি নির্ভরতায় এর আমদানিতে ক্রমবর্ধমান স্থানীয় চাহিদা মেটাতে ব্যয়বহুল আরও অবকাঠামো নির্মাণ, আমদানি ব্যয় বৃদ্ধি, ভোক্তাদের ওপর করের বোঝা বাড়াসহ নানা নেতিবাচক প্রভাব বাংলাদেশের অর্থনীতিতে দেখা যাবে।দেশের জ্বালানি খাত নিয়ে আপনার মূল্যবান মতামত কমেন্টে জানিয়ে দিন 👇 ... See MoreSee Less
View on Facebook

what imported & costly lng means for bangladesh

As one of the most climate-vulnerable countries in the world and was hit the hardest by a severe energy crisis in recent times, Bangladesh must shift away from harmful fossil fuel/LNG dependence towards gaining energy security by increasing investment in renewable energy, and that’s something Bangladesh needs to start right now.

ONLY RENEWABLE ENERGY CAN ENSURE AN ENERGY-SECURE FUTURE FOR BANGLADESH.